BARAK VALLEY NEWS : সুস্মিতা দেবের জায়গায় শপথ নিলেন শিলচরের সাংসদ রাজদীপ রায়

BARAK VALLEY NEWS : প্রাক্তন সাংসদ সুস্মিতা দেবের জায়গায় লক্ষ্মীপুর পুরসভার পদাধিকারি হিসাবে শপথ বাক্য পাঠ করলেন শিলচরের সাংসদ রাজদীপ রায়। এ উপলক্ষে লক্ষ্মীপুর পুরসভার কনফারেন্স হলে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপস্থিত ছিলেন জেলা বিজেপি সভাপতি কৌশিক রাই, পুরনেত্রী সঙ্গীতা গুরুং, উপ-পুরপতি মিনালকান্তি দাস, প্রাক্তন সভানেত্রী রিমি পাল, উপ-পুরপতি রবীন্দ্র সিংহ, লক্ষ্মীপুর মন্ডল বিজেপি সভাপতি সঞ্জয় ঠাকুর প্রমুখরা। সাংসদকে শপথ বাক্য পাঠ করান পুরনেত্রী সঙ্গীতা গুরুং ।
RAJDEEP ROY MP SILCHAR

রাজদীপ বলেন, আজ দুই দিক দিয়ে ঐতিহাসিক দিন। বিগত সরকারের আমলে কর্মচারীদের দুর্ব্যবহার সহ্য করেও অতিরিক্ত খরচে বরাক উপত্যকার লোকেদের সরকারি যেকোনো কাজে যেতে হত গুয়াহাঁটিতে। কিন্তু এখন আর যেতে হবে না। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী শিলচরে মিনি সচিবালয় নির্মাণ করা হচ্ছে। অর্থ বরাদ্দ হওয়ার পর আজ ভূমি পূজা অর্চনার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। অন্যদিকে, লক্ষ্মীপুর পুরসভায় পদাধিকারি হিসাবে শপথ নিয়েছেন। এর জন্যই দুই দিক দিয়ে ঐতিহাসিক বলে জানান তিনি।

BARAK VALLEY NEWS : সুস্মিতা দেবের জায়গায় শপথ নিলেন শিলচরের সাংসদ রাজদীপ রায়


পাশাপাশি বলেন, রাজ্যের তুলনায় লক্ষ্মীপুরে উন্নয়নের ধারা তলানিতে ঠেকেছে। তবে কেন ঠেকেছে নাম না নিয়ে বলেন, কাছাড় জেলার সাত বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে ছয় বিধানসভা কেন্দ্রে শাসক দলের বিধায়ক। তাই লক্ষ্মীপুর ছাড়া প্রতিটি কেন্দ্রে সড়ক থেকে প্রতিটি স্তরের উন্নয়নমূলক কাজ তীব্রগতিতে চলছে। আগামীতে এর দিকে লক্ষ রেখে পঞ্চায়েত ও লোকসভা নির্বাচনের ন্যায় বিধানসভা নির্বাচনেও লক্ষ্মীপুরবাসী শাসক দলকে পছন্দ করবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন তিনি বলেন, উনিশোবিরান্নবই-সালে লক্ষ্মীপুর মহকুমায় উন্নীত হলেও এখন পর্যন্ত মহকুমার পূর্ণাঙ্গ রূপ পায়নি। মহকুমার পূর্ণাঙ্গ রূপ দিতে সব চেষ্টা চালিয়ে যাবেন। তবে সবাইকে একজোট হতে হবে। পুরসভা নির্বাচনের খুব বেশি দিন নেই। যা করার এর আগেই করতে হবে। সাংসদ বলেন, মেডিক্যাল কলেজে ছাত্র থাকাকালীন উনিশোচুরান্নবই-সালে সরকারি নিয়ম অনুযায়ী পনেরোদিন লক্ষ্মীপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কাটিয়ে ছিলেন, যা হয়তো কেউ জানেন না। বলেন, লক্ষ্মীপুর বহু সমস্যা জর্জর হলেও লক্ষ্মীপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রকে আধুনিকীকরণ করে চব্বিশ ঘন্টা চিকিৎসা পরিষেবার আওতায় আনতে হবে। পাশাপাশি লক্ষ্মীপুর উন্নয়নে সচেষ্ট থাকার অঙ্গীকারবদ্ধ হন তিনি।

কৌশিক রাই বলেন, লক্ষ্মীপুরে বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে। ইতিমধ্যে আবর্জনা সমস্যার সমাধান হয়েছে। কেন্দ্র ও রাজ্যের বিজেপি সরকার। লক্ষ্মীপুর মহকুমা সমস্যা নিয়ে সাংসদ রাজদীপের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি। সভা শেষে লক্ষ্মীপুরে বিভিন্ন সমস্যা সংযুক্ত কয়েকটি স্মারকপত্রও গ্রহণ করেন সাংসদ। এর মধ্যে একটি স্মারকপত্র ছিল সিঙ্গীরবন্দের বরাক ভাঙন নিয়ে।




No comments: